ঈশ্বর যা করেন মঙ্গলের জন্য করেন

3

Views: 21

দুই বন্ধু। একজনের নাম কমল, আর একজনের নাম বিমল। বিমল ছেলেটি বেশ ঠাকুর ভক্ত। ওর সব কথাতেই, “ঈশ্বর যা করেন মঙ্গলের জন্য করেন।”  আর কমল ছেলেটি একটু নাস্তিক গোছের। কমল ভাবল দাঁড়াও ওর ঐ “ঈশ্বর যা করেন মঙ্গলের জন্য করেন”  কথাটা মিথ্যে প্রমাণ করে ছাড়বো। একদিন কমল, বিমলকে বলল,
-“এই বিমল আজ আমরা, আমার আর এক বন্ধুর বাড়ি যাব। যদিও সে আমায় একাই ডেখেছে, তবুও তুই চল আমার সাথে।”
বিমল কাঁচুমাচু হয়ে বলল,
-” আরে না না আমায় আবার কেন?”
কমল হেসে বলল,
-“আরে ওই বন্ধু আমার তান্ত্রিক। ওর কাছে গিয়ে তোমার ভাগ্যটা যাচাই করব যে তোমার ঈশ্বর কবে তোমার অমঙ্গল করবে?” বলে হাসতে লাগল।
বিমল বলল,
-“আরে দ্যাখো কমল ঠাকুর দেবতা নিয়ে ইয়ার্কি নয়। খুব খারাপ হয়ে যাবে বলে দিলাম।”
কমল হেসে বললো,
-“আরে না না তোর সঙ্গে একটু রগর……”
বলতে বলতে কমল খুব জোর হোঁচট খেলো। পড়তে পড়তে বিমল ওকে ধরে ফেলে।
কমল, “উঃ” বলে দাঁড়িয়ে পড়ল। কমল বলল,
-“রাস্তাটা কি উঁচু-নিচু গর্ত। পা থেকে রক্ত বেরিয়ে গেল।”
বিমল বলল,
-“অনেক রক্ত বেরোচ্ছে তো রে। “বলে পকেট থেকে রুমালটা বার করে বিমল কমলের আঙুলে বেঁধে দিল।
কমল একটু খোঁড়াতে খোঁড়াতে বলল,
-“আরে বিমল, তোর ঈশ্বর তো আমার অমঙ্গল করে দিল রে।”
বিমল হেসে বলল,
-“না রে, ভাই তোর এই পা কেটে রক্ত বেরোনো এও কোনো মঙ্গল এর ব্যাপার হবে দেখিস।”
মাথায় রাগ চেপে বসল কমলের। কিছু বলল না বটে মুখে। চোখ দুটো যেন কিসের আশায় ঘুরছে। হঠাৎ চোখে পড়ল খানিক দূরে এক মানুষ সমান গর্ত রাস্তার পাশে। হঠাৎ কমল রাগে বিমলকে ঠেলে ওই গর্তে ফেলে দিলো কিছু বোঝার আগেই।
আচমকা গর্তে পড়ে ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে গেলো বিমল। উঠতে গিয়ে দেখে জলকাদায় ডুবে গেছে; চিৎকার করে বললো,
-“এই কমল আমায় ধাক্কা দিলি কেন? তোল আমায়! ইয়ার্কি হচ্ছে নাকি?”
 কমল হাসতে হাসতে বলল,
-“কেন ঈশ্বর তোর মঙ্গল করছেন তো? তুই নিজে নিজে ওঠ দেখি, তোর ঈশ্বর কত মঙ্গল করেন, সাহায্য করেন।” বলে চলে গেল কমল।

তান্ত্রিক বন্ধুর বাড়ি, গ্রাম থেকে একটু দূরে একটু জঙ্গলের মাঝে। সন্ধ্যে প্রায় হয়ে এসেছে; কমল পৌঁছে দেখে, তান্ত্রিক বন্ধুর বাড়িতে পুজার আয়োজন চলছে। তান্ত্রিক বন্ধু কমল বলছে, পূজা হবে কিন্তু কি পূজা হবে তা বলে নি। কয়েকজন ষন্ডা গন্ডা মার্কা লোক ঘোরাঘুরি করছে। কমলকে দেখে তান্ত্রিক বন্ধু খুব খাতির করে একটা ঘরে বসতে দিল। শরবত খেতে দিল। বলল,
-“তুমি একটু বোসো আমি এক্ষুনি পুজোয় বসবো। তারপর তোমায় ডাকবো।” বলে তান্ত্রিক বন্ধু দরজা বন্ধ করে চলে গেল।
অবাক হয়ে কমল চিৎকার করে বলল,
-“ও বন্ধু দরজা বন্ধ করলে কেন খুলে দাও খুলে দাও দরজা। “
 কমল দরজা ধরে টানাটানি করল কিন্তু কেউ দরজা খোলে না। মিনিট দশেক বাদে একটা ষন্ডা মতো লোক এসে কমলকে বলল,
-“এই চলো স্নান করবে চলো। “
কমল বললো,
-“কেন স্নান করবো কেন?”
লোকটা বলল,
“তোমায় আজ বলি দিয়ে তোমার তান্ত্রিক বন্ধু সিদ্ধি লাভ করবে।”
কমল আঁতকে উঠে চিৎকার করে বলল,
-” না কিছুতেই না। “
আর একটা ষন্ডা  লোক এসে কমলের হাত ধরে দুজনে মিলে কমলকে টেনে বাইরে নিয়ে এলো। কমল দেখল চারিদিক অন্ধকার হয়ে গেছে।  উঠানে বড় কালী মূর্তির পূজা হচ্ছে। এসব দেখে মাথা ঘুরছে। দুজন লোক ওকে টানতে টানতে  নিয়ে চলেছে হাঁড়ি কাঠের দিকে।
লোকদুটো  নিজেদের মধ্যে বলাবলি করছে,
-“একে প্রথম প্রহরে; আর একজনকে শেষপ্রহরের। “
 মনে মনে বুঝতে পারে, ওরই মতন আর একজন হতভাগ্য কোন ঘরে আছে কে জানে? প্রথম লোকটি দ্বিতীয় লোকটিকে বলল,
-“স্নান করার সময় ভালো করে ওর দেহটা দেখে নিবি, কোনো খুঁত আছে কিনা।” বলতে বলতেই লোক দুটোর চোখে পড়ে কমলের পায়ের দিকে।  দেখে কমল খুঁড়িয়ে হাঁটছে, আর পায়ের আঙুলে রুমাল বাঁধা। ব্যাস  লোকটা চিৎকার করে বলল,
-“ওরে এর পা কাটা; খুঁত আছে।” বলতেই দুজনে ছুটল কাকে বলতে বা কিছু জানাতে। কমলের মাথায় কিছু ছিল, শুধু ওইটুকু সুযোগে ওর মাথায় বিদ্যুৎ খেলে গেলো। কে যেন বলল,
-“পালা। “
তখনই কমল ছুট লাগলো অন্ধকারে।  অনেকখানি ছুটে এসে একজায়গায় দাঁড়িয়ে হাঁফ নিল। ঘাড় ঘুরিয়ে দেখল কেউ পিছনে আসছে কিনা না।
-“নাঃ কেউ আসেনি।” হঠাৎ তার কানে এল একটু দূরে কেউ ডাকছে। -“কে আছো আমায় বাঁচাও!আমি এই গর্তে পড়ে গেছি।”
বুঝতে পারল কমল। এ বিমলের গলা। রাগে কমল ওকে গর্তে ফেলে চলে গিয়েছিল। ছুটটে গিয়ে তাড়াতাড়ি বিমলকে তুলল গর্ত থেকে। বিমল গর্ত থেকে উঠে দেখে উদ্ধারকর্তা আর কেউ নয় কমল। কমল বিমলের পা ধরে ক্ষমা চাইল। বিমল ওকে বুকে জড়িয়ে ধরল। তারপর বাড়ি ফিরে চলল  দুই বন্ধু।

Audio Story Starts From Here:

Story InfoName
WriterKaberi Ghosh
NarratorPriyanka Dutta
IntroductionOlivia Das
CharactersName
BimalDebanshu Ghosh
KamalSouvik Sarkar
TantrikDebanshu Ghosh
Onnano charitraJoydeep Lahiri,Souvik Sarkar

https://www.facebook.com/srijoni

আরো পড়ুন

What’s your Reaction?
+1
0
+1
1
+1
1
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0

About Post Author

3 thoughts on “ঈশ্বর যা করেন মঙ্গলের জন্য করেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *